1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০১:৫০ অপরাহ্ন

আদমদীঘির রক্তদহ বিল

পলাশীর যুদ্ধে মুসলমানরা বিপন্ন হয়ে পড়লে মীর জাফর, উমিচাঁদ,রায়দুলভের মতো কতিপয় দেশদ্রোহীর সহযোগিতায় ইংরেজরা এ দেশের রাজ ক্ষমতার অধিকারী হয়ে বসে। দেশবাসী এতে করে সাময়িকভাবে হতম্ভিত হয়ে পড়ে।

ফলে কিছু দিনের মধ্যে শুরু হয়ে গেল স্বাধীনতা পুনরুদ্ধারের জন্য সশস্ত্র সংগ্রাম। প্রথম যুগের সেই স্বাধীনতা সংগ্রামে যে সব বীরযোদ্ধা সম্মুখ সারিতে ছিলেন তাদের মধ্যে ফকির মজনু শাহ অন্যতম। পলাশীর যুদ্ধের ৬ বছর পরে এই ফকির নেতা প্রথম সংগ্রাম ও উপনিবেশ চালান। বগুড়ার মহাস্হানে ফকির নেতা মজনু শাহর আস্তানা বা প্রধান ঘাঁটি ছিলো। ১৭৭৬ সালে এখানে তিনি একটি দুর্গ তৈরী করেছিলেন।

এখান থেকে বিভিন্ন স্থানে তিনি অভিযান পরিচালনা করেছেন। তার মধ্যে আদমদীঘি থানার অভিযান উল্লেখযোগ্য। ১৭৮৬ সালে আগস্ট মাসে বগুড়া থেকে ৩৫ মাইল দুরত্ব এক স্থানে লেফটেন্যান্ট আইন শাইনের সঙ্গে তার সংঘর্ষ হয়েছিল। গবেষণায় দেখা গেছে, এ স্থানটি আদমদীঘি থানার রক্তদহ বিল।

এখানে ব্যাপক ইংরেজ সৈন্য হতাহত হয়েছিল এবং রক্তের বন্যা বয়ে গিয়েছিল বলে সে সময় এর নাম রাখা হয় রক্তদহ বিল। এ দরগাতে প্রতি শুকবার কেউ না কেউ মানত বা জিয়ারত করে। কিন্তু আশ্চর্যজনক হলে ও সত্য বড় বড় বন্যার মধ্যে মাজারের চারদিক ডুবলেও এ মাজারে পানি উঠেনি।

এমনিভাবে ফকির মজনু শাহ বাংলার ইতিহাসে যেমন চির স্মরনীয় হয়ে আছেন তেমনি আদমদীঘির ইতিহাসেও।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD