1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মিজানুর রহমান আকন্দ টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অমর ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরী ও পুষ্পস্তবক অর্পন বাকেরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে অতিরিক্ত আইজিপি হলেন বাকেরগঞ্জের কৃতি সন্তান বশির আহমেদ বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরা হলোনা কলেজ শিক্ষার্থী লাকির বান্দরবান জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ইয়াংছা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে নগদ অর্থসহ ত্রাণ সামগ্রী ভিতরণ লামার ইয়াংছা বাজারে ভয়াবহ আগুন, কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি শ্রীপুরে, মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গ্রেফতার ভুল তথ্য প্রকাশের প্রতিবাদ জানিয়ে লামায় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হোসাইন চৌধুরী’র সংবাদ সম্মেলন কুড়িগ্রামে মাদক বিরোধী জনসচেতনতা সভা ও প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত

আপনার সন্তানকে নৈতিক শিক্ষা দিন

দেলোয়ার হোসেন রনি

শিক্ষা একটি মানুষকে করে তোলে মহান। কে প্রতিষ্ঠিত করে গড়ে তুলতে শিক্ষিত ব্যক্তির বিকল্প নেই কিন্তু সেখানে যদি নৈতিক শিক্ষার অভাবটা থেকেই যায় তাহলে সেই মানুষটি দ্বারা সমাজ কতটুকুই বা প্রতিষ্ঠিত হবে? সে কি ভাবনার বিষয় নয়? একটি শিশু তখনই সঠিক মানুষ হিসেবে গড়ে উঠে যখন তার মধ্যে নৈতিক শিক্ষার বীজ বুনন হয়।

বর্তমান সমাজ আজ অস্থিরতায় ভরপুর। প্রতিমুহূর্তে কী ঘটতে চলেছে বলা মুশকিল। প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে ধর্ষণ, খুন, চুরি, চিনতাইসহ নানা অপরাধ। টিভির পর্দায় প্রতিদিনকার খবরের শিরোনামে চোখ বুলাতেই ভেসে উঠছে অপরাধের চিত্র। কেন এই অবস্থা? ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে পারছে না শিশুরাও। অধ:পতন ঘটেছে চরিত্রের, ধ্বংস হচ্ছে মনুষ্যত্বও!শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেমন নিরাপদ নয় শিক্ষার্থীরা তেমনি মায়ের কোলেও নিরাপদ নয় সন্তান। যখন তখন ঘটে যায় অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা।

অপরাধ করেও অপরাধীর কোন অনুশোচনা নেই। হয়ে উঠছে আরো বেপরোয়া, উচ্ছৃঙ্খল। যারা এই ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে তারাও আমার, আপনার মত কোন না কোন মানুষ। কি বলবেন এদের? নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত এরা?

লক্ষ্য করলেই দেখা যাবে আমাদের নৈতিক শিক্ষার অবস্থান একেবারে তলানীতে ঠেকেছে। দিনের পর দিন সবাই ছুটে চলেছে সন্তান কে বিশাল বিশাল প্রতিষ্ঠানে বড়সড় ডিগ্রি অর্জন করানোর চেষ্টায়। যেখানে নৈতিক শিক্ষার বালাই নেই বললেই চলে। যার ফলস্রুতিতে নিজের সন্তানই হয়ে দাঁড়ায় কাল। যেমনটি পরিলক্ষিত হয় নিজের বাবা মা কে খুন করা বালিকা ঐশীর হত্যাকান্ডে৷ শুধু ঐশী নয় নৈতিক শিক্ষার অভাবে সমাজের কিছু কিট নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে বুয়েট ছাত্র আবরার ও নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র তৌহিদুল কে।

এজন্য প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি শিশুদের নৈতিক শিক্ষার চর্চা করানো অতিব জরুরি। জীবনকে সুন্দর ও সুশৃঙ্খল করতে এই শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। নৈতিক শিক্ষার অভাবে পরিবার ও সমাজে নানা সমস্যার সৃষ্টি হয় যা কোনভাবেই কাম্য নয়। আরেক দিক বিবেচনা করলে দেখা যায় পরিবারে গড়ে উঠছে না নৈতিক মূল্যবোধের পরিবেশ অথচ পরিবারে যদি নৈতিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধের সন্নিবেশ ঘটত তবে কোনদিন সে পরিবারের সন্তান লম্পট আর খারাপ চরিত্রের অধিকারী হতে পারতনা।পরিবার এবং সমাজের পরিবেশ অনৈতিকতায় ভরে থাকবেই বা না কেন যেখানে হাতের কাছেই পাওয়া যাচ্ছে অপরাধের সকল উপকরণ।

যে সমাজে অশ্লীলতা, অনৈতিকতা, মদ, জুয়া, নেশাজাতীয় দ্রব্য ইত্যাদি বৃদ্ধি পাবে সে সমাজ তো ধ্বংস হওয়ারই কথা। বিলুপ্ত হবে শ্রদ্ধাবোধ, সম্মান ইত্যাদি। সেখানে জেঁকে বসবে অপরাধ। অশ্লীলতা আর অনৈতিকতা যেন দিন দিন স্বাভাবিকভাবেই মর্যাদা পাচ্ছে। সেগুলো যেন কোন অপরাধই নয়। অবৈধ এসব কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িতদের বাঁচানোর জন্যেও দাড়িয়ে যায় একদল পশু যা দেখে সংখ্যালঘু সচেতন মানুষ হয় ক্ষুব্ধ, হতাশ। প্রতিবাদের ভাষা হারিয়ে মুখ বুজে সহ্য করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকে না তাদের।

সম্পদশালী হলেই কী সন্তানকে প্রশ্রয় দিয়ে মাথায় তুলতে হবে? তাকে কী নৈতিক ও ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত করার কোনই দরকার নেই? এসব নিয়ে প্রত্যেক পিতা-মাতা, অভিভাবককে ভাবতে হবে। যে সন্তান নেশা আর অশ্লীলতার দিকে ঝুঁকবে সে সন্তান বড় হলে কোনভাবেই আর নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। দিন দিন অধঃপতনের দিকে ধাবিত হওয়া এই সমাজকে রক্ষা করতে জন্মের পর থেকেই একটি শিশুকে নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। রক্ষা করতে হবে দেশকে। বাড়াতে হবে সচেতনতা। রাষ্ট্রের সকলকেই এগিয়ে আসতে হবে অনৈতিকতা ও অশ্লীলতামুক্ত পরিবেশ তৈরিতে। আর বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িতদের শাস্তির জন্যে কঠোর আইন প্রয়োগ করে তা বাস্তবায়ন করতে হবে যাতে করে পরবর্তীতে এমন কোনো অপরাধ করতে দ্বিতীয় কেউ সাহস না পায়।

তাই মা-বাবা, অভিভাবক, সচেতন সব মানুষ সহ সরকারকেও এসব অনৈতিকতা ও অশ্লীলতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদী অবস্থান নিয়ে সমাজের সবাই মিলে যৌথ প্রচেষ্টায় নিজের ঘর থেকেই নৈতিক শিক্ষা চর্চার মাধ্যমেই কেবল একটি সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ দেশ গড়ে তোলা সম্ভব।

লেখক:
দেলোয়ার হোসেন রনি
সাধারণ সম্পাদক,
বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD