1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৩:১৩ অপরাহ্ন

ইয়াংছা হিমছড়ি ও কুমারী রিজার্ভ এ ডাকাতির বিষয় নিয়ে আইনশৃঙ্খলা মিটিং অনুষ্ঠিত

  • মোঃ এমরান বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ আগস্ট, ২০২২ / ইপেপার প্রিন্ট ইপেপার প্রিন্ট

আজ (০৭-০৮-২০২২ইং) বিকেল ৪ঘটিকার সময় অংহ্লারী পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে ইয়াংছা হিমছড়ি ও কুমারী রিজার্ভ এ ডাকাতির বিষয় নিয়ে আইনশৃঙ্খলা মিটিং এর আয়োজন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে বক্তব্য নেওয়া হয়।
ভুক্তভোগী বাহাদুর ইসলাম বলেন, আমাদের এলাকায় প্রতি রাতেই ডাকাতি হচ্ছে, দিনে যেমন তেমন রাত হলে আমরা কেউ ঘুমাতে পারিনা, বিশেষ করে আমাদের মেয়েদের নিয়ে খুবই আতঙ্কের মধ্যে থাকি, ডাকারর আমাদের মেয়েদেরকে ধর্ষণ করার হুমকি দিয়েছে, যার কারনে রাত হলেই আমাদের মেয়েরা অন্য জায়গায় চলে যায় না হয় সারারাত জেগে থাকে।

ভুক্তভোগীদের পক্ষ থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়, যেমন ইয়াংছা হিমছড়ি রোডে লামার শেষ বর্ডারে লামা থানা থেকে পুলিশের একটি টিম ডিউটি দেওয়া, এবং লামার বর্ডার পার হয়ে চাকরিয়া থানা থেকে পুলিশের একটি টিম ডিউটি দেওয়া।

৩ নং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হোসাইন চৌধুরী বলেন, লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের মানুষ রাতে ঘুমাতে পারেনা, সবসময় আতঙ্কের মধ্যে থাকে, দিনে হলে যেমন তেমন রাত হলেই শুরু হয় তাকাতি, আমার ইউনিয়নের মানুষের চোখে ঘুম নাই, খুবই কষ্টের মধ্যে আছে আমার জনগণ, আমাদের ডাকাত গুলো চিন্হিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। তিনি আরো বলেন, ডাকাত গুলো আমাদের পার্শ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলা থেকেই আসে।

সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম বলেন, আমরা দীর্ঘদিন থেকেই ডাকাতের অত্যাচারে আছি, মাঝখানে একবছর মতো বন্ধ হলেও এখন সুরাজপুর মানিকপুরের নতুন রাস্তাটি হওয়ার পর থেকে আবারো ডাকাতি শুরু হয়েছে, সুরাজপুর মানিকপুরের রাস্তায় যদি পুলিশ টিমের একটি টহল দেওয়া হয় তাহলে আমরা ডাকাতির কবল থেকে মুক্তি পাবো।

লামা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, লামা চকরিয়া সড়কের ইয়াংছা থেকে কুমারী ব্রিজ পর্যন্ত আমার পুলিশের তিনটি টিম বিকেল ৫টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত টহল দিয়ে থাকে, আমি আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টায় আপনাদের নিরাপত্তা দিয়ে থাকি, আমরা সবসময় আপনাদের সেবা করতে প্রস্তুত, তিনি, হিমছড়ি রাস্তা এবং কুমারী রিজার্ভ এলাকায় আরো ২-৩ টি পুলিশ এর টিম বিকেল ৫টা থেকে রাত ২টা পর্যন্ত ডিউটি দেওয়ার আশ্বাস দেন, এবং আগামীকাল থেকেই তা কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ চন্দন বলেন, আমার চকরিয়া উপজেলা টা অনেক বড়, আমার থানায় পুলিশ জনবল কম, কিন্তু এরিয়া বড়, যার কারনে আমাদের সব এলাকা সামলাতে একটু কষ্ট হয়ে যাচ্ছে, হাঁসের দিঘি থেকে কুমারী রিজার্ভ এলাকা পর্যন্ত আমাদের পুলিশ টিমের একটি টহল দেওয়া হয়, এবং সুরাজপুর মানিকপুর রাস্তায় ও আমাদের একটি পুলিশ টিমের টহল দেওয়া হয়, আপনাদের এলাকা গুলোর দিকে আমরা সবসময় নজর দিবো, সবসময় আপনাদের পাশে থাকবো, যেকোনো বিপদেই আমাকে কল দিলে আমি সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পাঠাবো।
ক্যাম কমান্ডার অলিউর রহমান, মোঃ কাজল, কুমারী পুলিশ বিড এর আইসি মোঃ ফোরকান,

লামা উপজেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যেসব স্থানে ডাকাতি হচ্ছে সেই স্থান গুলোতে আপনারা পুলিশের ডিউটি দেন, এবং সেই সাথে ডাকাত গুলো আটক করার ব্যাপারে নজর দেন, আমি আমার জনগণের নিরাপত্তা চাই, যেইভাবে পারেন আপনারা আমার জনগণকে নিরাপত্তা দেন এবং আমার জনগণকে শান্তিতে ঘুমাতে দেন।

এছাড়া উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, ইয়াংছা ক্যাম্প কমান্ডার মোঃ অলিউর রহমান, কুমারী চেকপোস্টের আইসি মোঃ ফোরকান, ৩ নং ফাঁসিয়াখালী ইউপি সদস্য মোঃ ইসমাইল, মোঃ জিয়াবুল, মোঃ আবু ওমর, সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মোঃ কাজল, গণমাধ্যমকর্মী, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD