1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
লামায় জীনামেজু টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট এর পক্ষ থেকে একুশে পদক প্রাপ্ত ড. জিনবোধি মহাথেরকে গনসংবর্ধনা প্রদান বান্দরবানের লামায় ধর্ষণের ঘটনায় পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ লাখ টাকা জরিমানাবজ্জীবন পূর্ব বিরোধের জেরে স্কুল থেকে ফেরার পথে প্রধান শিক্ষকের ওপর হামলা, থানায় অভিযোগ নেত্রকোণায় ট্রাক চাপায় নারীর মৃত্যু বই মেলায় হেপি সরকারের প্রথম কাব্যগ্রন্থ “হৃদয়ের কাব্যকথা” ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশ থেকে  অবৈধ দোকান গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন ২১ফ্রেবুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে একবেলা খাবারের আয়োজন মিজানুর রহমান আকন্দ টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অমর ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরী ও পুষ্পস্তবক অর্পন বাকেরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে

খাগড়াছড়ি রেড ক্রিসেন্টের পাঁচ গ্রামে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ শুরু

খাগড়াছড়ি জেলার দুর্গম ও তীব্র পানির সংকটাপন্ন পাঁচ গ্রামে ওয়াশ প্রকল্পের আওতায় তিন সপ্তাহব্যাপী বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ শুরু করেছে খাগড়াছড়ি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) সকালে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলাধীন দুর্গম সীমানা পাড়া ও জেলার চন্দ্রকিরণ কার্বারী পাড়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে পানি বিতরণের মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু হয়। এতে সহায়তা করছে খাগড়াছড়ি সড়ক ও জনপদ বিভাগ এবং ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেড ক্রস। প্রথমদিনের পানি বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের এফও মোঃ দিদারুল আলম (রাফি), এফও ধীমান ত্রিপুরা, এইচপিও জোসি চাকমা, যুব সদস্য আল আমিন ও অভি বড়ুয়া।

খাগড়াছড়ি জেলাধীন সীনানা পাড়া, চন্দ্রকিরণ কার্বারী পাড়া, মিলন কার্বারী পাড়া, আটমাইল ও নয়মাইল এলাকায় তিন সপ্তাহে পাঁচ শতাধীক পরিবারকে প্রায় এক লক্ষ লিটার পানি সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছেন সংস্লিষ্টরা।

খাগড়াছড়ি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের এফও মোঃ দিদারুল আলম (রাফি) জানান, পাহাড়ের দুর্গম গ্রামগুলোতে বসবাসরত জনগোষ্ঠীর মানুষজন বর্তমান সময়ে তীব্র পানির সংকটে রয়েছেন। তাদের পানির সংকট লাঘবে আমরা তিন সপ্তাহ বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ শুরু করেছি।

সীমানা পাড়ার কার্বারী চয়ন ত্রিপুরা বলেন, আমাদের গ্রামের মানুষজন অনেক দূর থেকে ঝর্ণার পানি এনে খায়। রেড ক্রিসেন্ট থেকে পানি দেয়ায় আমাদের কষ্ট কমেছে।

চন্দ্রকিরণ কার্বারী পাড়ার বাসিন্দা হেনা ত্রিপুরা বলেন, আমরা গ্রামের মানুষ একঘন্টা হেঁটে গিয়ে আনি। এখন ছড়া শুকিয়ে যাওয়ায় পানি নাই। রেড ক্রিসেন্ট থেকে পানি দেয়ায় আমাদের উপকার হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD