1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মিজানুর রহমান আকন্দ টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অমর ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরী ও পুষ্পস্তবক অর্পন বাকেরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে অতিরিক্ত আইজিপি হলেন বাকেরগঞ্জের কৃতি সন্তান বশির আহমেদ বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরা হলোনা কলেজ শিক্ষার্থী লাকির বান্দরবান জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ইয়াংছা বাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে নগদ অর্থসহ ত্রাণ সামগ্রী ভিতরণ লামার ইয়াংছা বাজারে ভয়াবহ আগুন, কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি শ্রীপুরে, মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গ্রেফতার ভুল তথ্য প্রকাশের প্রতিবাদ জানিয়ে লামায় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হোসাইন চৌধুরী’র সংবাদ সম্মেলন কুড়িগ্রামে মাদক বিরোধী জনসচেতনতা সভা ও প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার সরকারী ঘরে উপকারভোগীবৃন্দের আনন্দমুখর পদচারণা

দামুড়হুদা উপজেলায় ১ম ও ২য় পর্যায়ে তৈরিকৃত ঘরসমূহ আজ উপকারভোগীবৃন্দের আগমনে বর্ণিল। হাউলী রেলগেটের পাশে তৈরী হয়েছে মোট ৪১ টি ঘর। পাশেই রয়েছে পুকুর। সবুজে ঘেরা শান্ত প্রকৃতির বুকে জেগে উঠেছে জনপদ….প্রাণচঞ্চলতা। তৈরী করে দেওয়া হয়েছে ইটের রাস্তা। অধিকতর সুরক্ষার জন্য পুকুরে দেওয়া হচ্ছে গাইড ওয়াল, চলছে ড্রেন, কালভার্ট নির্মাণের কাজ। উপজেলার অন্যান্য জায়গায় নির্মিত ঘরের উপকারভোগীদের জন্যও বিদ্যুৎ, পানিসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলার মান্যবর জেলা প্রশাসক স্যারের নেতৃত্বে, স্হানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দের সার্বিক সহোযোগিতায় এসব ঘরসমূহ নির্মাণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত পরম মমতা আর দায়িত্বশীলতা নিয়ে কাজ করেছি। কখনও মনে হয়নি এঘরগুলি অন্যের জন্য করছি, সীমিত বাজেটের মধ্যে একাধিক দোকানে যাচাই করে গুণগত মান নিশ্চিতকরণ সাপেক্ষে ক্রয় করা হয়েছে প্রতিটি ম্যাটেরিয়াল। সাধ্যের মধ্যে সাধকে সুসম্পন্ন করার চেষ্টা ছিলো শতভাগ। এ ঘরসমূহ তৈরীর সময়ে খাস জমি উদ্ধারে ওভারকাম করতে হয়েছে বিভিন্ন চ্যালেন্ঞ্জকে। রোজা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, প্রচন্ড গরম সবকিছু উপেক্ষা করে গৃহ নির্মাণ কমিটির সবাই একসাথে একাধিকবার ছুটে গিয়েছি বিভিন্ন স্পটে। কঠোর তদারকি আর গভীর আন্তরিকতার ছোঁয়ায় তৈরী হয়েছে প্রতিটি গৃহ।

করোনার করাল থাবায় যখন জনজীবন বিপর্যস্ত তখন জেলা প্রশাসক স্যার নিজে ছুটে এসেছেন খাদ্য সহায়তা নিয়ে। তাদের সার্বিক খোঁজখবর নিয়েছেন সার্বক্ষণিক। যখন তাদের হাসিভরা মুখ দেখছিলাম তখন মনে হচ্ছিলো এ যেন হাসিএ নয় হাজারো আলোর ঝলকানি। আর সেই আলোয় রঙ্গীন হয়ে উঠেছে বাংলার প্রতিটি কোন। তাদের আনন্দমুখর পদচারণায় মাতোয়ারা হয়ে ভাবছিলাম মমতাময়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসায় সিক্ত আজ পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী। আজ তারা স্বপ্ন দেখার সাহস পেয়েছে, পেয়েছে ভালোবাসাপূর্ণ শান্তির নীড়। এই প্রজন্মই হয়তো আগামীতে এঁকে দিবে সাফল্যের পদচিন্হ। আল্লাহর রহমত বর্ষিত হোক সকলের জীবনে।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD