1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বরগুনাবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন লায়ন মোঃ ফারুক রহমান নান্দাইলের মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নে অসহায় ও গরীবদের জন্য দেওয়া ভিজিএফ’র চাল বিতরণে হরিলুট ভূরুঙ্গামারীতে আদম ব্যবসায়ীর জমজমাট ব্যবসা বসতবাড়ির ভিটা হারাচ্ছেন সাধারণ মানুষ নিখোঁজ সংবাদ নান্দাইলে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত প্রবীণ সাংবাদিক জালাল উদ্দীন মন্ডল খালিয়াজুরীতে সংসদ সদস্য সাজ্জাদুল হাসানের ঐচ্ছিক তহবিল থেকে অনুদান প্রদান নওগাঁয় ছেলের লাঠির আঘাতে প্রাণ গেলো বাবার নওগাঁয় নিজ বাড়ির সামনে খুন হলেন মাতব্বর নওগাঁয় ডিবি পুলিশের অভিযান ১০১ কজি গাঁজাসহ গ্রেফতার-২ ভূরুঙ্গামারীতে সিটি প্রেস ক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি হলেন সাংবাদিক কাজল ও সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক রফিকুল

মোহনগঞ্জে নাগরিক সুবিধা না দেওয়ার অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

নিউজ ডেস্ক

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে ওয়ারিশান সনদপত্রসহ বিভিন্ন বিভিন্ন নাগরিক সুবিধা না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সোহাগ তালুকদার নামে এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত সোহাগ তালুকদার উপজেলার বড়তলী-বানিয়াহারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। সম্প্রতি ওই ইউনিয়নের কলুঙ্কা গ্রামের বাসিন্দা ভূক্তভোগী জাহাঙ্গীর খান নামে এক ব্যক্তি এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী জাহাঙ্গীর খান জানান, পারিবারিক কারণে আমার একটি ওয়ারিশান সনদ নেওয়ার প্রয়োজন দেখা দেয়। গত ২০ মার্চ নিয়মানুযায়ী স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে যাচাইপূর্বক সনদপত্র তৈরি করে মেম্বারের সিল-স্বাক্ষর নিয়ে চেয়ারম্যান সোহাগ তালুকদারের কাছে গেলে তিনি ওই সনদপত্রে স্বাক্ষর করতে অস্বীকৃতি জানান। এমনকি আমাদের পরিবারের কোন বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের সহযোগীতা করা হবে না বলে জানান। তিনি আরো বলেন, গত নির্বাচনে আমরা চেয়ারম্যান সোহাগ তালুকদারের বিপক্ষে অন্য প্রার্থীর হয়ে নির্বাচন করেছি। তাই সেই রাগে তিনি আমাদের পরিবারের লোকজনদেরকে ইউনিয়ন পরিষদের সহায়তা বঞ্চিত করছেন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে গিয়ে বিষয়টি জানাই। তিনি পরে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করতে বলেন। তাই জেলা প্রশসাকের কাছে অভিযোগ দিয়েছি।

জাহাঙ্গীর খান জানান, গত ফেব্রুয়ারি চাকরির জন্য চারিত্রিক সনদপত্র তুলতে আমার ভাতিজা ইউনিয় পরিষদে গেলে চেয়ারম্যান চারিত্রিক সনদ দেননি। পরে এ কারণে ভাতিজার চাকরি হয়নি। ওই বিষয়টিও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছিলাম কিন্তু প্রতিকার পাইনি।

অভিযুক্ত চেয়ারম্যান সোহাগ তালুকদার বলেন, অভিযোগটি মিথ্যা বানোয়াট। ওয়ারিশান সনদের জন্য যখন গিয়েছিল তখন আমি এলাকার বাইরে ছিলাম। ফোনে আমি জাহাঙ্গীর খানকে বলেছি- দুইদিন পর পরিষদে এসেই তাকে ওয়ারিশান সনদ দেব। তারপরও অভিযোগ করেছে। এটা দুঃখজনক।

এ বিষয়ে জানতে সোমবার রাতে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশকে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে মোহনগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএন) ছাব্বির আহমেদ আকুঞ্জি বলেন, ওয়ারিশান সনদ- চারিত্রিক সনদ এসব প্রাপ্তি একজন মানুষের নাগরিক অধিকার। একজন চেয়ারম্যান কোনভাবেই নাগরিকের অধিকার বঞ্চিত করতে পারেন না। অভিযোগের বিষয়টি মৌখিকভাবে ডিসি স্যারের কাছ থেকে জেনেছি। লিখিতভাবে বিষয়টি এখনো পাইনি। এ বিষয়ে তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD