1. rana.bdpress@gmail.com : admin :
  2. admin@dailychandpurjamin.com : mazharul islam : mazharul islam
  3. rmctvnews@gmail.com : adminbd :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাকেরগঞ্জ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন “গ্রীন মোহনগঞ্জ” এর সার্বিক সফলতা ও পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন জনাব সাজ্জাদুল হাসান এমপি। খালিয়াজুরীতে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ লাঠির আঘাতে কৃষকের মৃত্যু নেত্রকোনা ডেভেলপমেন্ট ফোরামের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত ঈদের দিন পাহাড়ে বেড়াতে গিয়ে ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত মদন উপজেলা গোবিন্দশ্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ২০১৯ ব্যাচের ইফতার ও দোয়া মাহফিল বরগুনায় স্বপ্নযাত্রী একতা ফাউন্ডেশনের ঈদ সামগ্রী বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঈদ উপহার বিতরণ করলেন সাজ্জাদুল হাসান এমপি ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন চেয়ারম্যান কাইয়ুম খান ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন রাশেদুল হাসান রাসেল

লামা-আলীকদম সড়কের বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন কর্তৃক সিএনজি ড্রাইভার যাত্রীদের সন্ত্রাসীয় হামলা

মুহাম্মদ এমরান
বান্দরবান

লামা-আলীকদম-চকরিয়া সড়কের বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন,ড্রাইভার হেল্পার কর্তৃক সিএনজি চালক ও যাত্রীদের উপর সন্ত্রাসীয় হামলা চালিয়েছে।

(০৬ ফেব্রুয়ারী) মঙ্গলবার সকাল ১১ঘটিকার সময় লামা-চকরিয়ায় সড়কের হিমছড়ি রিজার্ভ এলাকা(সেগুন বাগান) সংলগ্ন রাস্তায় লামা-আলীকদম সড়কের বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন এর ড্রাইভার হেল্পার কর্তৃক সিএনজির ড্রাইভারসহ যাত্রীদের উপর অতর্কিত ভাবে সন্ত্রাসীয় হামলা চালিয়েছে।এতে সিএনজি চালকসহ অনেক যাত্রী আহত হয়েছে।

সেইসাথে সিএনজিতে থাকা যাত্রীদের মোবাইল ও টাকা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
সিএনজিতে থাকা যাত্রী,বান্দরবান ৩০০ নং আসনের জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি প্রার্থী শহিদুল ইসলাম বলেন, পূর্বপরিকল্পিত ভাবে লামা থেকে চকরিয়ায় যাতায়াতের পথে হিমছড়ি রিজার্ভ এলাকায় অবস্থান করছিলো বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীসহ ড্রাইভার ও হেল্পারগন। তারা প্রায় ৭টি জীব গাড়ি নিয়ে রাস্তায় অবস্থান করছিলো।  আমরা লামা থেকে চকরিয়া যাওয়ার পথে আমাদের উপর অনাকাঙ্খিত ভাবে হামলা চালিয়েছে।এতে আমার সিএনজির ড্রাইভারসহ আমরা অনেকে আহত হয়েছি।

অপরদিকে লামা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট এর পেশকার মোঃ সাদ্দাম বলেন, আমি মোটরসাইকেল নিয়ে চকরিয়া থেকে লামার দিকে যাচ্ছিলাম,যাওয়ার পথে বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন কর্তৃক সিএনজির ড্রাইভারসহ যাত্রীদের উপর হামলা করতে দেখে আমি রাস্তায় দাঁড়ায়, তখন অনাকাঙ্খিত ভাবে বাস-চান্দের গাড়ির সবাই মিলে আমার উপর ঝাপিয়ে পড়ে,  এতে আমি মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছি। আমার নাক দিয়ে রক্ত বের হয়ছে। আমি প্রাথমিক ইয়াংছা ডাকারের কাছ থেকে চিকিৎসা নিয়েছি। আমার পকেটে  প্রায় পনেরো হাজার ৫০০টাকা মতো ছিলো,এর থেকে আমি ৫হাজার টাকা পেয়েছি। আমার আরো দশ হাজার টাকা মতো নিয়ে গেছে তারা, সেইসাথে আমার ব্যাবহৃত একটি এন্ড্রয়েড ফোন নিয়ে গেছে।

অপরদিকে চকরিয়া-লামা-আলীকদম সড়কে সিএনজি ও মাহিন্দ্র বন্ধের দাবীতে সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে বাস-জীপ মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন।

এদিকে লামা-আলীকদমের সিএনজির যাত্রীরা বলেন, আমাদের জন্য সিএনজি সবচেয়ে সুবিধা, কারণ আমরা যেকোনো মুহূর্তে সিএনজি সুবিধা নিতে পারি, এমনকি রাত ১২-০১ ঘটিকার সময় কল দিলেও সিএনজি চলে আসে। আমাদের একটা অসুস্থ রোগী হাসপাতালে নিতে চাইলেও আমাদের সিএনজি কাজে আসে। বাস এবং জীব সবসময় পাইনা। সিএনজি আমাদের জন্য সুবিধা বেশি।

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2021 rmcnewsbd
Theme Developed BY Desig Host BD